মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

নিদড়ীয়া সমজিদ, হারানো মসজিদ ও লালমনিরহাট কেন্দ্রীয় স্মৃতিসৌধ

নিদাড়িয়া মসজিদঃ লালমনিরহাট জেলায় প্রাচীন মুসলিম স্থাপত্য শিল্পের একটি অপূর্ব নিদর্শন নিদাড়িয়া মসজিদ। মোগল আমলে নির্মিত এ মসজিদটি রংপুর-কুড়িগ্রাম সড়ক থেকে ২ কি.মি. দক্ষিণে সদর উপজেলার পঞ্চগ্রাম ইউনিয়নের কিসামত নগরবন্দ মৌজায় অবস্থিত। মসজিদের নির্মাতা সম্পর্কে খোদাইকৃত তথ্য বোধগম্য না হলেও এর শিলা লিপিতে নির্মণকাল ১১৭৬ হিজরী রয়েছে বলে উল্লেখ পাওয়া যায়। ইট ও চুন-সুক্রি দিয়ে নির্মিত ৩ গম্বুজ ও ৩ দরজা বিশিষ্ট মসজিদটির দৈর্ঘ্য ৪২ ফুট এবং প্রস্থ ১৬ ফুট ৮ ইঞ্চি।

হিজরীর হারানো মসজিদঃ বাংলাদেশ ইসলাম প্রচারের প্রাচীনতম নিদর্শন সমূহের মধ্যে একটি হচ্ছে-লালমনিরহাট সদর উপজেলার পঞ্চগ্রাম ইউনিয়নের রামদাস মৌজার হারানো মসজিদ, যা রংপুর-কুড়িগ্রাম সড়ক থেকে ১ কি.মি. দক্ষিণে অবস্থিত। ১৯৮৭ খ্রিস্টাব্দে 'মজ্জিদের আড়া' নামক জংগলাচ্ছন্ন একটি স্থানের মাটির ঢিবি কেটে সমতল করার সময় প্রাচীন এ মসজিদটির ধবংসাবশেষ আবিষ্কৃত হয়। উল্লেখ্য যে, এ মসজিদটির নতুন নামকরণ 'সাহাবায়ে কেরাম মসজিদ' করা হয়েছে।

কেন্দ্রীয় স্মৃতিসৌধঃ কেন্দ্রীয় স্মৃতিসৌধ লালমনিরহাটের মিশন মোড় থেকে ১/২ কি.মি. পশিমে অবস্থিত।